নারায়ণা হেলথ হাসপাতালের সাথে প্রাভা হেলথের অংশীদারিত্বের ঘোষণা।


জানুয়ারি ১৭, ২০১৮, ঢাকা, বাংলাদেশ - ভারতে শীর্ষস্থানীয় / পুরস্কার জয়ী নেটওয়ার্ক হাসপাতাল তথা নারায়ণা হেলথ হাসপাতালের সাথে পরামর্শ ও ডায়াগনসিসের সুবিধা বিস্তারে প্রাভা হেলথ তার একাত্মতা ঘোষণা করে। এই অংশীদারিত্বের ফলে প্রাভাতে আগত রোগীরা নারায়ণে ৩০জন বিশেষজ্ঞের কাছ থেকে পরামর্শ গ্রহণের সুযোগ পাবেন; যাদের মধ্যে হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ এবং কার্ডিয়াক সার্জন, অনকোলজিস্ট, নিউরোলজিস্ট ও নিউরো সার্জন, অর্থোপেডিক সার্জন, নেফ্রোলজিস্টস এবং ইউরোবিদগণ এবং গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজিস্ট সাথে পরামর্শের সুযোগ অন্তর্ভূক্ত।

 

বাংলাদেশ থেকে প্রতি বছর ১০০,০০০ জন রোগী চিকিৎসার জন্য ভারতের নারায়ণা হেলথে পরিদর্শন করেন। এই অভিনব অংশীদারিত্বের ফলে নির্ধারিত সেবার অধীনে রোগীরা প্রাভা হেলথে থেকেই তাদের কন্সালটেশন শুরু করতে পারবেন। ভিডিও কনফারেন্স প্রযুক্তির মাধ্যমে রোগীরা ঢাকায় প্রাভার বিশ্বমানের ফ্যামিলি হেলথ সেন্টার থেকে চিকিৎসকদের সাথে শলা-পরামর্শের মাধ্যমে ভারত ভ্রমণের আগে এবং পরের যাতায়াতের ব্যবধান কমিয়ে আনতে পারবেন। এছাড়াও রোগীরা যাত্রার পূর্বেই নারায়ণা হাসপাতাল হতে নির্ধারিত যাবতীয় ডায়াগনসিস ও পরীক্ষা প্রাভার সদ্য পূর্ণ পরিষেবা ল্যাবরেটরিতে করিয়ে নিতে পারবেন। বাড়িতে ফিরে আসার পর নারায়ণার সার্জনদের কাছে ভার্চুয়াল অ্যাক্সেস একটি স্বচ্ছন্দ আরোগ্য প্রক্রিয়া নিশ্চিত করবে এবং সকল রোগী, বিশেষ করে সার্জারি হতে আরোগ্যলাভ করছেন এমন রোগীদের জন্য সার্বিকভাবে সেরা অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করবে।

 

যারা চিকিৎসা সেবার জন্য ভারত যেতে চান, তারা প্রাভা হেলথের আওতায় নারায়ণা হেলথের বিশেষজ্ঞ এবং সুবিশেষজ্ঞদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগাযোগ করার সুবিধা পাবেন।

 

প্রাভা হেলথের প্রতিষ্ঠাতা এবং সিইও মিস সিলভানা সিনহা বলেন, "যেসকল রোগীরা বাংলাদেশ থেকে মেডিকেল সেবা গ্রহণের জন্য ভারত যান তারা এই প্রথমবার ঢাকার প্রাভা হেলথ হতেই মান সম্পন্ন ডায়াগনসিস সেবা পাবেন, যার অর্থ বাড়ির বাইরে কম সময় এবং পরিবারের জন্য বেশী সময়। বাংলাদেশের রোগীদের রোগ নিরাময়ের যাত্রাকে সংক্ষিপ্ত করার লক্ষ্যে প্রাভা ও নারায়ণা সীমানার গন্ডি পেরিয়ে একযোগে কাজ করছে।"

 

"এই একাত্মতা রোগীকে প্রাভা হেলথ হতে প্রাক-হাসপাতাল ডায়াগনসিসের পাশাপাশি নারায়ণা হেলথ হাসপাতালের বিশেষজ্ঞ ও সার্জনদের সাথে ভিডিও কন্সাল্টেশনের মাধ্যমে এক নতুন ধরনের সেবার সুযোগ দিচ্ছে, যা বিশেষ করে কার্ডিয়াক বা হৃদরোগীদের জন্য প্রযোজ্য।" ডাঃ সিমীন মজিদ আখতার, প্রাভা হেলথের সিনিয়র মেডিকেল পরিচালক।

 

এছাড়াও নারায়ণা হেলথ হাসপাতালের ইন্টারন্যাশনাল মার্কেটিং এর সাধারন ব্যবস্থাপক (জিএম) মিঃ এম এস গুরু প্রাসাদ বলেন, "নারায়ণা হেলথের হাসপাতালের সাথে এই অংশীদারিত্বের মাধ্যমে বাংলাদেশের জনগণের কাছে উন্নতমানের, সাশ্রয়ী স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার নিমিত্তে প্রাভার প্রতি আমাদের অঙ্গীকারকে আমরা আরও এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি"।

 

নারায়ণা হেলথঃ

 

নারায়ণা হেলথের সদর দপ্তর ভারতের ব্যাঙ্গালোরে এবং এটি সারা ভারতের হাসপাতালগুলির মধ্যে একটি নেটওয়ার্ক পরিচালনা করে। বিশেষ করে দক্ষিণ রাজ্যের কর্ণাটক ও পূর্ব ভারতে এর শক্তিশালী উপস্থিতি এবং পশ্চিম ও কেন্দ্রীয় ভারতে এর উদীয়মান উপস্থিতি বিদ্যমান। ব্যাঙ্গালোরের প্রায় ২২৫টি অপারেশন বেড প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে আমাদের প্রথম সেবা কেন্দ্রটি প্রতিষ্ঠিত হয় এবং সেখান থেকে আমরা ২৩টি হাসপাতাল, ৭টি হৃদরোগ পর্যালোচনা কেন্দ্র এবং ভারত জুড়ে প্রাথমিক যত্ন কেন্দ্রের একটি নেটওয়ার্কে পরিণত হয়েছি। সেইসাথে আমরা কেইম্যান দ্বীপপুঞ্জে একটি আন্তর্জাতিক হাসপাতাল পরিচালনা করছি। গ্রীনফিল্ড প্রোজেক্টস অ্যান্ড অ্যাকুইজিশন্সের সমন্বয়ে গঠিত এই দলটি বর্তমানে প্রায় ৫,৯০০ কর্মক্ষম শয্যা বিশিষ্ট। আমরা বিশ্বাস করি যে গুণমান, দক্ষ ডাক্তার এবং একটি দক্ষ ব্যবসায়িক মডেলের সমন্বয়ে এই বৃহত্তর জনগোষ্ঠীকে উচ্চমানের, সাশ্রয়ী স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের লক্ষ্যে “নারায়ণা হেলথ” ব্র্যান্ড দৃঢ়ভাবে নিযুক্ত।

 

আমাদের কেন্দ্রটি সম্মিলিতভাবে কার্ডিওলজি এবং কার্ডিয়াক সার্জারি, ক্যান্সার পরিষেবা, নিউরোলজি এবং নিউরোসার্জারি, অস্থিবিদ্যা, নেফ্রোলজি এবং মূত্রবিদ্যা এবং গ্যাস্ট্রোএন্টেরোলজির পাশাপাশি ৩০টিরও বেশি ক্ষেত্রে সেবা প্রদান করে।