Welcome to Praava Community

...

ডঃ সীমিন এম। আক্তার

সিনিয়র মেডিকেল ডিরেক্টর

আমি প্রাভা টিমের অংশ কারণ প্রাভা সুনির্দিষ্টভাবে মানের উপর জোর দেয়, যে দর্শনকে আমিও ধারণ করি। আমি মানসম্পন্ন স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের মাধ্যমে রোগীর পরিতুষ্টি নিশ্চিত করতে আগ্রহী।

স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্যসেবা ক্ষেত্রে ডাঃ সিমীন এম আখতারের ৩০ বছরের অভিজ্ঞতা রয়েছে। তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি সম্পন্ন করেন এবং আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআর, বি)-এ তার কর্মজীবন শুরু করেন। তিনি নিউ ইয়র্কের মাউন্ট সিনাই হাসপাতাল থেকে ইসিএফএমজি সম্পন্ন করেন এবং একজন স্বেচ্ছাসেবক হিসাবে সেখানে কাজ করেন। পরবর্তীতে তিনি থাইল্যান্ডে স্থানান্তর করেন এবং ব্যাংককের পাঞ্জা হাসপাতালে কাজ করেন, যেখানে তিনি ট্রপিকাল মেডিসিনে ডিটিএমএন্ডএইচ সম্পন্ন করেন। তিনি মাহিদল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমপিএইচ লাভ করেন এবং এরপর ওয়াশিংটন ডিসির জর্জটাউন মেডিকেল সেন্টারে একজন পরিদর্শক চিকিৎসক হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন। ১৯৯২ সালে তিনি লন্ডনে চলে যান এবং কিংস কলেজ থেকে পুষ্টি বিষয়ে তার স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করেন। পরের দুই দশক ধরে তিনি স্পেন ও মালয়েশিয়ার মতো দেশে কাজ করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবায় উচ্চতর ডিগ্রি অর্জন করেন। কর্মজীবনের মেয়াদকালে তিনি বহু সেমিনার ও কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন। একইসাথে তিনি তিনটি জে.সি.আই স্বীকৃতি লাভ করেন, যারমধ্যে মাননীয় প্রিন্সেস মাহা চাক্রি সিরিন্ধর্ণ কাছ থেকে প্রশংসামূলক “মেডেল অফ অ্যাপ্রেসিয়েশন” অর্জন উল্লেখযোগ্য। অবশেষে ২০০৯ সালে ডাঃ সিমীন বাংলাদেশ ফিরে আসেন এবং অ্যাপোলো হাসপাতালে কোয়ালিটি অ্যাসিওরেন্সের সাধারণ ব্যবস্থাপক হিসেবে যোগদান করেন। তিনি নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি থেকে ২০১৪ সালে হেলথ সায়েন্স ম্যানেজমেন্ট ডিগ্রি অর্জন করেন। এই বছরের শুরুতে তিনি প্রাভা হেলথের সাথে জড়িত হন এবং বর্তমানে তিনি সিনিয়র মেডিকেল অ্যাডভাইজার হিসেবে এখানে দায়িত্ব পালন করছেন। সাধারণের উন্নয়নে গভীরভাবে নিযুক্ত ডাঃ সিমীন মাগুরায়, তার গ্রামে, ‘নারী কল্যাণ সংস্থা’ প্রতিষ্ঠা করেন। এটি একটি সংস্থা যেখানে একজন নারীর দক্ষতার উন্নয়নের মাধ্যমে তার পুনর্বাসন করা হয়। তিনি নারীর ক্ষমতায়ন, প্রতিরক্ষা এবং কুষ্ঠরোগীদের পুনর্বাসনের মত অন্যান্য বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের সাথে সংযুক্ত।